Samsung M30s Mide Budget High Configuration Best Smart Phone [ চায়ের দামে সরবত ]

0
4

বন্ধুরা আপনারা ইতিমধ্যেই হয়তো শুনেছেন যে, Samsung M সিরিজের স্মার্টফোন গুলো অনেক জনপ্রিয় হয়েছে। এই জনপ্রিয় হওয়ার প্রধান কিছু কারণের মধ্যে অন্যতম একটি কারণ Samsung M সিরিজের স্মার্টফোন গুলো সাধ্য মূল্যের মধ্যে অনেক ভাল কনফিগারেশন এবং ফিচার যুক্ত করেছে। এবারও এর ব্যতিক্রম ঘটেনি। পৃথিবীর সর্ববৃহত মোবাইল উৎপাদনকারী এই প্রতিষ্ঠানটি চলতি সেপ্টেম্বর মাসেই Samsung M30s ইন্ডিয়ার বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। আজকে আমরা Samsung M30s মোবাইল টিতে কি কি থাকছে তাই নিয়ে আলোচনা করবো। তাহলে দেখে নেওয়ার যাক গরিবের মোবাইল Samsung M30s নতুন কি কি দিচ্ছে স্যামসাং।

 

  1. প্রথমত যারা লংড্রাইভ বা গ্রেমপ্রিয় মানুষ তাদের জন্য অত্যান্ত সুসংবাদ হলো এই মোবাইলটিতে ব্যবহার করা হয়েছে 6000Mh ব্যাটারী।
Recommended  Apple sells 10 million iPhone 6 and iPhone 6 Pluses

  1. টাইপ-সি পোর্ট পোর্ট দেওয়া হয়েছে এই মোবাইলটিতে। স্যামসাং এর খুব কম মডেলের মোবাইলগুলতেই টাইপ-সি পোর্ট আছে।

ফলে এই মিড রেঞ্জ মোবাইলটিতে টাইপ-সি পোর্ট অত্যান্ত ভাল বলেই মনে হচ্ছে।

  1. 15 ওয়াট ফাষ্ট চার্জিং এ্যাডাপটার থাকবে যা পুর চার্জ করতে মাত্র 30-40 মিনিট সময় লাগবে।

  2. 6.4 ইঞ্চি সুপার এ্যামোলেড ডিসপ্লে এবং ইনফিনিটি ইউ নোচ তো আছেই।

  3. অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে এই মোবাইলটিতে দেওয়া হবে এ্যানড্রয়েড পাই কিন্তু বলে রাখা ভাল এ্যানড্রয়েড 10 বাজারে

আসা মাত্র আপডেট হয়ে যাবে।

  1. প্রসেসর হিসেবে আগের ফোনগুলোতে 700 সিরিজের প্রসেসর থাকলেও এই মোবাইলটিতে 9611 প্রসেসর।

সেক্ষেত্রে প্রসেসরের দিক দিয়েও অনেকটা এগিয়ে আছে স্যামসাং A-30 or A-50 থেকে।

  1. এই মোবাইলটি 2টি ভেরিয়েশনে পাওয়া যাবে অর্থাত [ 4 জিব + 64 জিবি ] এবং [ 4 জিবি + 128 জিবি ]

  2. মোবাইলটি হার্ডওয়ার নিয়ে কোন দু:খ্য প্রকাশ করার মত কিছু না থাকলেও যথারিতি আগের মোবাইলগুলোর

মতই এই মোবাইলটিতেও ব্যাক কভার এ ব্যবহার করা হয়েছে পলি কার্বন।

যেখানে অন্যান্য মোবাইল দিয়ে থাকে গ্লাস কভার।

  1. ক্যামেরার কথা যদি বলতে যাই তাহলে এক্ষেত্রে স্যামসাং প্রসংসা পাওয়ার যোগ্যতা রাখে।

কেননা এই মোবাইলটিতে ব্যাক ক্যামেরা হিসেবে থাকছে 3টি ক্যামেরা যার মধ্যে প্রাইমারী সেন্সর টা থাকছে 48MP যা স্যামসাং

এর নিজস্ব GW1 সেন্সর ব্যবহার করা হয়েছে। 2য় ক্যামেরাটি ওয়াইড এংগেল লেন্স 8MP

এবং 3য় টি ডেপ সেন্সরের জন্য। সেআলোকে ধরেই নেওয়া যায় এই মোবাইল দিয়ে

গরিবের DSLR মানের ছবি আপনাকে উপহার দিবে এবং সেলফি ক্যামেরা হিসেবে থাকছে 16 MP।

  1. সর্বশেষ বরাবরের মতই ব্যাক সাইডে থাকছ ফিঙ্গার প্রিন্ট সেন্সর।

এবার আসি দামের প্রসঙ্গে। বর্তমানে এই মোবাইলটি ইন্ডিয়াতে 15000-16000 রুপিতে পাওয়া যাবে

যা বাংলাদেশের বাজের প্রায় 20000-22000 টাকা পাওয়া যাবে আসা করা যায়।